ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২২ জিলহজ ১৪৪১

জাতীয়

এক বছরের কষ্ট ভুলে গেছে এক দিনের আনন্দে

শফিকুল ইসলাম খোকন, উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ১, ২০২০
এক বছরের কষ্ট ভুলে গেছে এক দিনের আনন্দে এক বছরের কষ্ট ভুলে গেছে এক দিনের আনন্দে

বরগুনা: ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ। ছোট বড় কেউ এই আনন্দ থেকে বঞ্চিত হতে চায়না।

কিন্তু এ সমাজের অনেকের কপালে মেলেনা ঈদ আনন্দ।

এজন্য শেখ রাসেল শিশু পুনর্বাসন ও সরকারি শিশু পরিবারের দুই শতাধিক শিশুর সঙ্গে ব্যতিক্রমী ঈদুল আজহা উদযাপন করলেন বরগুনার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. মোস্তাইন বিল্লাহ।  

সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বরগুনাস্থ শেখ রাসেল শিশু পুনর্বাসন কেন্দ্রের ১০০ জন বালিকা, ৭৪ জন বালক এবং সরকারি শিশু পরিবার, বরগুনার প্রায় ৬৬ জন শিশুর জন্য পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে বরগুনা জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে নতুন জামা কাপড় দেওয়া হয়। ঈদের আগেই সামাজিক দূরত্ব এবং যথাযথ নিয়ম মেনে শিশুদের জন্য এসব জামা কাপড় সরবারাহ করা হয়। নতুন জামার সঙ্গে শিশুদের ঈদের খুশি দিগুণ করেছে উত্তম খাবার দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ঈদের দিনে শিশুদের উত্তম খাবার পরিবেশন নিশ্চিত করতে ডিসি মোস্তাইন বিল্লাহ শিশুদের জন্য তিনটি গরু হস্তান্তর করেন। ঈদের দিনগুলোতে গরুর মাংস এবং পুষ্টিসমৃদ্ধ মুখরোচক খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহর নেতৃত্বে জেলা প্রশাসনের সব কর্মকর্তা দুপুরে এতিম শিশুদের সঙ্গে একবেলা খেয়েছেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মোহাম্মদ নূর হোসেন সজল বলেন, করোনার এই ক্রান্তিকালে ঈদুল আজহা উপলক্ষে অবসরে নেই বরগুনা জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসক স্যারের নির্দেশে জেলার শিশুদের সঙ্গে বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ইদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। ঈদের দিনে শিশুদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন, শিশুদের দুপুরের খাবার পরিবেশনসহ সার্বিক বিষয় মনিটরিং করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২১ ঘণ্টা, আগস্ট ০১, ২০২০
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa