ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২২ জিলহজ ১৪৪১

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

কর্মস্থলে ফিরলেন রামপালে বিক্ষোভরত ভারতীয় শ্রমিকরা 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৫ ঘণ্টা, মে ৪, ২০২০
কর্মস্থলে ফিরলেন রামপালে বিক্ষোভরত ভারতীয় শ্রমিকরা 

বাগেরহাট: প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কর্মস্থলে ফিরেছেন দেশে ফেরাসহ বিভিন্ন দাবিতে বাগেরহাটের রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রে বিক্ষোভরত ভারতীয় শ্রমিকরা।

সোমবার (০৪ মে) বিকেলে জেলা প্রাশসন ও পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিক্ষোভরত শ্রমিকদের কর্মস্থলে পাঠান।  

এর আগে দুপুরের দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বাধা উপেক্ষা করে ওই কেন্দ্রের সীমানা অতিক্রম করে সামনের রাস্তায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে কয়েকশ’ ভারতীয় শ্রমিক।

কেউ কেউ কয়েক কিলোমিটার পায়ে হেঁটে খুলনা-মোংলা মহাসড়কের বাবুরবাড়ী মোড়েও পৌঁছান বলে জানা গেছে।  

আন্দোলনরত শ্রমিকরা বাংলানিউজকে জানান, রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রে ভারতীয় ১ হাজার ৮০০ শ্রমিক চুক্তি ভিত্তিক কাজ করছেন। চুক্তি অনুযায়ী নির্মাণ প্রতিষ্ঠান শ্রমিকদের ঠিকমতো বেতন, খাওয়া-দাওয়া এবং চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে না বলে তাদের (শ্রমিক) অভিযোগ। এছাড়া করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে যেসব স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা প্রয়োজন, সেগুলো কর্তৃপক্ষ মানছে না বলেও তাদের অভিযোগ। লকডাউনের দোহাই দিয়ে শ্রমিকদের বাড়িতে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। তাই যেকোন মূল্যে তারা দেশে (ভারতে) যেতে চান।   

এ ব্যাপারে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জেনারেল ম্যানেজার সরোজিত মণ্ডল বাংলানিউজকে বলেন, শ্রমিকদের চুক্তি অনুযায়ী সবকিছুই দেওয়া হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির কারণে তারা নিজ দেশে ফিরে যেতে চান কিন্তু এই মুহূর্তে যাতায়াত ব্যবস্থা বন্ধ থাকার কারণে তাদের পাঠানো সম্ভব হচ্ছে না। এছাড়া শ্রমিকরা যে অভিযোগ করেছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি করেন তিনি।

বাগেরহাট পুলিশ সুপার (এসপি) পঙ্কজ চন্দ্র রায় বাংলানিউজকে বলেন, বিক্ষোভরত শ্রমিকদের বুঝিয়ে কর্মস্থলে ফেরাতে সক্ষম হয়েছি। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে বিষয়টির মীমাংসাও হবে বলে আশা রাখছি।  

** দেশে ফেরার দাবিতে রামপালে ভারতীয় শ্রমিকদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৫ ঘণ্টা, মে ০৪, ২০২০
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa